Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২১ শনিবার ২৯ নভেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  সংস্কৃতি  ঘরোয়া  পর্দা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
কেন্দ্রের সরকারের বিরুদ্ধে রাজ্যের প্রতি বঞ্চন: সমালোচনার ঝড় তুললেন মমতা ।। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে হাঁটলেন ওঁরা--দীপঙ্কর নন্দী ।। শর্তসাপেক্ষে বি জে পি-কে সভার অনুমতি দিল কোর্ট ।। পথে নেমে লড়াইয়ের দাবি লোকাল সম্মেলনে ।। রোজভ্যালি: এখনই তল্লাশি ও বাজেয়াপ্ত চলবে না, বলল হাইকোর্ট ।। এবার বুদ্ধিজীবীদের মিছিলের ডাক বি জে পি-র ।। সংসদ চত্বরে এবার হাঁড়ি মাথায় তৃণমূল ।। অনেকটাই কমতে পারে পেট্রল, ডিজেলের দাম ।। প্রাক্তনীর আবেগের কাছে হারল রাষ্ট্রপ্রধানের যুক্তি--দেবারুণ রায় (রাষ্ট্রপতির সফরসঙ্গী), নীলাঞ্জনা সান্যাল ।। দরকার সহৃদয়তা ও স্বল্প খরচে চিকিৎসা: রাষ্ট্রপতি--অরূপ বসু ও দেবারুণ রায় ।। হলদিয়ায় জেলা সম্মেলন সি পি এমের ।। পাড়ুই: ২ অফিসারের শাস্তিতে স্হগিতাদেশ
কলকাতা

শর্তসাপেক্ষে বি জে পি-কে সভার অনুমতি দিল কোর্ট

প্রাক্তনীর আবেগের কাছে হারল রাষ্ট্রপ্রধানের যুক্তি

দরকার সহৃদয়তা ও স্বল্প খরচে চিকিৎসা: রাষ্ট্রপতি

কেন্দ্রের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে হাঁটলেন ওঁরা

বেলেঘাটায় পাম্পিং স্টেশনের শিলান্যাস

নির্বাচন ও প্রশাসন নিয়ে বই প্রকাশ

শ্বাসের ব্যায়াম মদনের

৮ লাখের গয়না উধাও

শর্তসাপেক্ষে বি জে পি-কে সভার অনুমতি দিল কোর্ট

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

আজকালের প্রতিবেদন: ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনেই কাল রবিরার বি জে পি-র সভা হওয়ার কথা৷‌ শুক্রবার বিচারপতি দেবাংশু বসাক বি জে পি-কে এই সভা করতে দেওয়ার সুযোগ দেন৷‌ তবে, রাতের খবর অনুযায়ী বিচারপতি বসাকের রায় চ্যালেঞ্জ করে আজ শনিবার ডিভিশন বেঞ্চে যেতে পারে কলকাতা পুরসভা৷‌ রাত পর্যম্ত নিশ্চিত করে জানা যায়নি শেষপর্যম্ত কলকাতা পুরসভা ডিভিশন বেঞ্চে যাবে কি না৷‌ বি জে পি-র রাজ্য সভাপতি রাহুল সিনহা এ প্রসঙ্গে বলেন, ডিভিশন বেঞ্চে গেলেও আমরা জিতব এবং আমরা ওখানেই সভা করতে পারব, মুখ পুড়বে তৃণমূল পরিচালিত কলকাতা পুরসভার৷‌ এর আগে বিচারপতি দেবাংশু বসাক তাঁর এজলাসে এই মামলা সূত্রে জানান, বি জে পি-কে কলকাতা পুরসভা ও দমকল যেভাবে বিধি মেনে মঞ্চ তৈরি করতে বলেছে, সেভাবেই তাদের তা করতে হবে৷‌ শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্ট এই রায় দিয়েছে৷‌ প্রকৃতপক্ষে বৃহস্পতিবারই বি জে পি-র রাজ্য সভাপতি রাহুল সিনহা বলেছিলেন, আমরা পুরসভা ও দমকল যেভাবে বলবে সেভাবেই মঞ্চ বাঁধতে প্রস্তুত৷‌ যদি কলকাতা পুরসভা ডিভিশনে বেঞ্চে যায়, তা হলেও বি জে পি পুরসভা ও দমকলের বিধি মানতে রাজি আছে, সে কথা আবার উচ্চতর আদালতকে জানাবে৷‌ আর যদি ডিভিশন বেঞ্চে মামলাটি না ওঠে তা হলে আজ শনিবার দমকল, পুর প্রতিনিধি ও কলকাতা পুলিসের সঙ্গে বি জে পি-র প্রতিনিধিরা এ বিষয়ে আলোচনা করবেন এবং ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে কীভাবে বিধি মেনে মঞ্চ করা যায়, তার নকশা চূড়াম্ত করবেন৷‌ সেক্ষেত্রে রবিবারের সভার জন্য প্রস্তুতির কাজ আজ শনিবারই শুরু হবে৷‌ কলকাতা পুরসভা ও দমকলের বিধি অনুসারে হচ্ছে কি না তা শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় ঘটনাস্হলে গিয়ে তদারকি করবেন হাইকোর্ট মনোনীত স্পেশাল অফিসার৷‌ তাঁরা হলেন দমকল বাহিনীর ডিজি সঞ্জয় মুখার্জি ও কলকাতা পুরসভার জয়েন্ট কমিশনার (ডেভেলপমেন্ট)৷‌ ওখানে সেই সময় উপস্হিত থাকতে বলা হয়েছে কলকাতার নগরপাল মনোনীত প্রতিনিধিকে৷‌ সেই সময় ওখানে থাকার সুযোগ দেওয়া হয়েছে এই মামলার আবেদনকারী রাজ্য বি জে পি-র দুই প্রতিনিধিকে৷‌ রাহুল সিনহা বলেছেন, আদালতের এই রায়ে তাঁদের জয় হল৷‌ হাইকোর্ট এই মর্মে শুক্রবার নির্দেশ দেওয়ার সময় স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছে, মঞ্চের দু’দিকে পুরসভার প্রস্তাব অনুসারে ২০ মিটার করে জায়গা ছাড়া সম্ভব নয়৷‌ তবে মঞ্চ তৈরির সময় দু’দিকে এমন জায়গা ছেড়ে রাখতে হবে যাতে প্রয়োজনে গাড়ি যেতে পারে৷‌ শুক্রবার সকালেই রাজ্য বি জে পি-র আইনজীবী এস কে কাপুর বিচারপতি দেবাংশু বসাকের এজলাসে বলেন, কলকাতা পুরসভা ও দমকল নানা অজুহাতে এখনও আমাদের ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে সভা করার অনুমতি দেয়নি৷‌ আদালতকে তাই অনুরোধ করছি নতুন করে এই মামলা শুনে দ্রুত নির্দেশ দিক৷‌ বিচারপতি মামলাটি গ্রহণ করতে রাজি হন৷‌ তবে বলেন, এত তাড়া কীসের৷‌ রবিবারই ওখানে সভা করতে হবে, তার কী মানে আছে? এই রকম পরিস্হিতিতে সভা পিছিয়ে দেওয়া যায় না? আইনজীবী এস কে কাপুর বলেন, না, তা যায় না৷‌ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বি জে পি-র বহু নেতা এই সভায় আসছেন৷‌ সব কিছু ঠিক হয়ে গেছে৷‌ বিচারপতি তখন বেলা ২টোয় মামলা শুনতে চান৷‌ আইনজীবী এস কে কাপুর আদালতকে বলেন, মঞ্চের মাপ ও নানা কারণ তুলে দমকল ও পুরসভা অনুমতি দিচ্ছে না৷‌ দমকল ও পুরসভার লোকেরা ওখানে দাঁড়িয়ে যে রকম মঞ্চ করতে দেবেন আমরা তাতেই রাজি৷‌ কলকাতা পুরসভা ও রাজ্য সরকারের পক্ষে অ্যাডিশনাল অ্যাডভোকেট জেনারেল অশোক ব্যানার্জি আদালতকে বলেন, এই কোর্টের এই মামলা শোনার অধিকারই নেই৷‌ আপত্তি জানিয়েছে কলকাতা পুরসভা৷‌ কলকাতা পুরসভা বিষয়ক যাবতীয় মামলা শোনার জন্য বিচাপরপতি দেবাশিস করগুপ্তের এজলাস বরাদ্দ৷‌ বিচারপতি দেবাংশু বসাক তখন বলেন, এই কোর্টই এই মামলা শুনতে পারে এবং শুনবে৷‌ কারণ পুলিসের বিষয়ক যাবতীয় মামলা ও দমকল বিষয়ক যাবতীয় মামলা কোনও নির্দিষ্ট আদালতে বরাদ্দ নয়৷‌ এমন যাবতীয় মামলা শোনার অধিকার এই আদালতের৷‌ পরিস্হিতির গুরুত্ব বিচার করে তাই এই আদালতই শুনবে৷‌ বিচারপতি দেবাংশু বসাক তখন শর্ত সাপেক্ষে শনিবার সকালে হাইকোর্ট মনোনীত স্পেশাল অফিসারের উপস্হিতিতে মঞ্চ করার নির্দেশ দেন৷‌ বি জে পি-র আরেক আইনজীবী কৌশিক চন্দ এই রায়কে জয় বলে মম্তব্য করতে রাজি হননি, শুধু বলেছেন হাইকোর্ট সব বিধি মেনে ওখানে যাতে সভা হয় সেই রকম একটা নির্দেশ দিয়েছে৷‌ রায় জানার পর বি জে পি রাজ্য দপ্তরে বসে রাহুল সিনহা বলেন, আমাদের স্হপতি সুশাম্ত পাল এবং অফিস সচিব অলোক গুহরায় আজ পুরসভা ও দমকলের সঙ্গে এ বিষয়ে কাজ করবেন৷‌ আমরা প্রথম থেকে আইন মেনে সভা করতে চাইছিলাম, কিন্তু বারবার আমাদের বাধা দেওয়া হয়েছে এবং আমরা যাতে সভা করতে না পারি তার চেষ্টা করে গেছে পুরসভা ও দমকল৷‌ কলকাতা পুলিসও আমাদের আবেদনপত্র নিয়ে দীর্ঘদিন নিশ্চুপ বসেছিল৷‌ এই সভার জন্য ইতিমধ্যেই সিদ্ধার্থনাথ সিংহ কলকাতায় এসেছেন৷‌ আমাদের কেন্দ্রীয় সভাপতি অমিত শাহ রবিবার আসবেন৷‌ এদিনের এই রায়ে বিচার ব্যবস্হার প্রতি আমাদের নতুন করে আস্হা জন্মাল৷‌ শুধু তাই নয়, সাধারণ মানুষও বিচার ব্যবস্হার নিরপেক্ষতাকে আরও শ্রদ্ধা করবে৷‌ শুক্রবার অমিত শাহর সঙ্গে রাহুল সিনহার বার কয়েক কথা হয়৷‌ তখনও রায় জানা যায়নি৷‌ অমিত শাহ রাহুল সিনহাকে জিজ্ঞাসা করেন, যদি শেষ পর্যম্ত আদালতের নির্দেশ আমাদের পক্ষে না যায়, তাহলে কী হবে? রাহুল সিনহা অমিত শাহকে আশ্বস্ত করে বলেন, আপনি নিশ্চিম্তে থাকতে পারেন, আদালত আমাদের পক্ষেই রায় দেবে৷‌ বাংলা বাঁচানোর জন্য আমরা রবিবার এই উত্থান দিবস পালন করছি৷‌ দিল্লি থেকে জানানো হয়েছে, বি জে পি রবিবারের সভাটিকে উত্থান দিবস হিসেবে যেমন চিহ্নিত করছে, তেমন এটিকে বিজয় দিবস হিসেবেও পালন করা হবে৷‌ ২২ জুলাই থেকে এই সভা করার জন্য রাজ্য বি জে পি চেষ্টা করে যাচ্ছে, এতদিন বাদে শুক্রবার তার ফয়সালা হল৷‌ অবশ্য কলকাতা পুরসভা যে ডিভিশন বেঞ্চে যেতে পারে, এমন খবর দিল্লিতে পৌঁছয়নি৷‌ রাজ্য বি জে পি ডিভিশন বেঞ্চে যাওয়ার খবর শুনেছে৷‌ যদি কলকাতা পুরসভা তা করে, তার জন্য বি জে পি প্রস্তুত, তারা তার বিরুদ্ধে লড়বে৷‌





kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || khela ||
sangskriti || ghoroa || tv/cinema || Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited